লাল ঐতিহ্যে রাজশাহী কলেজ

0
257

আসাদুজ্জামান নূর: দেশ সেরা রাজশাহী কলেজ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোর মধ্যে র‌্যাংকিংয়ে প্রথম হওয়াতে হ্যাট্রিক করেছে কলেজটি। ১৪৬ বছরের পুরোনো এ কলেজের প্রতিষ্ঠা ১৮৭৩ সালে। পরতে পরতে ইতিহাস আর ঐতিহ্য ধারণ করছে রাজশাহী কলেজ। রয়েছে ঐতিহাসিক বেশ কিছু স্থাপনাও। বিশেষ করে এর ভবনগুলো এনে দিয়েছে ঐতিহাসিক গুরুত্ব।

কলেজের ঐতিহাসিক ভবনের কথা উঠতেই প্রথমেই আসে প্রশাসনিক ভবনের নাম। কলেজের প্রধান ফটক পেরুতেই চোখে পড়ে দৃষ্টিনন্দন গাঢ় লাল দালান। ১৮৮৪ সালে ব্রিটিশ স্থাপত্য শৈলীতে নির্মিত হয় কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা দ্বিতল এ ভবন। চুন সুরকির কাজ করা লাল রঙের ভবনটি ব্রিটিশ ভারতীয় ঔপনিবেশিক স্থাপত্যের অন্যতম নির্দশন।

প্রশাসন ভবনের ডানদিকে শহীদ মিনার। শহীদ মিনার পেরিয়ে এবার বামে বাঁক নিলেই চোখে পড়বে প্রশাসন ভবনের আদলেই গড়া আরেক ঐতিহাসিক ভবন। ভবটির সিঁড়ির ওপরে সাদার ওপরে কালো হরফে লেখা ‘হাজী মুহম্মদ মুহসীন’। এ ভবনের নামকরণ করা হয়েছে প্রখ্যাত এই দানবিরের নামেই। ১৮৮৮ সালে নির্মিত হয় এ ভবন। তখন হাজী মুহম্মদ মহসীন এটির নির্মাণে আর্থিক অনুদান দেন। এই ভবনটিরও রঙ গাড় লাল।

হাজি মোহাম্মদ মুহসীন ভবন থেকে নেমে দক্ষিনের পথে এগুলে দূরে চোখ চলে যায় আরেকটি প্রাচীন লাল দালানে। গুণে গুণে ১৬৫ ধাপ ভবটির সিঁড়ি পর্যন্ত। ওপরে তাকাতেই চোখে পড়ে সাদা কালো ইংরেজি ও বাংলায় লেখা ফুলার ভবন। এ ভবনটিও শত বছর পেরিয়েছে। এছাড়াও মাঠের একেবারেই দক্ষিনে অধ্যক্ষের দোতলা লাল রঙা বাসভবন। এই ভবনটিতে উপ-মহাদেশের খ্যাতিমান শিক্ষাবিদগণ বসবাস করে গেছেন। কলেজের বর্তমান অধ্যক্ষ মহোদয়ও এখানেই বসবাস করছেন। এটিও নির্মিত হয়েছে ব্রিটিশ স্থাপত্য শৈলিতে।

ভবনগুলোর অন্যতম বৈশিষ্ট্য এর গাড় লাল রঙ। ঐতিহ্যবাহী এ ভবনগুলো প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই ছিল লাল রঙা। সম্প্রতি এ ভবনগুলোর পাশাপাশি কলেজের অন্যান্য ভবনগুলোও রাঙানো হয়েছে গাড় লাল রঙে। ঐতিহ্যবাহী এ ভবনগুলোর সাথে মিল রেখে প্রতিটি ভবনেই করা হয়েছে লাল রঙ। লাল রঙ মেখে ভবনগুলো জানান দিচ্ছে ইতিহাস ঐতিহ্যের ধারক রাজশাহী কলেজের স্বকীয়তার। লাল রঙা ভবন এখন রাজশাহী কলেজের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

ঐতিহ্যবাহী এ ভবনগুলোর পাশাপাশি কলাভবন, ইংরেজি ভবন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান ভবন, শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামান ভবন, বিজ্ঞান ভবন ১, ২ ও ৩, পদার্থ বিজ্ঞান ভবন সহ কলেজের প্রায় ১৪টি ভবনেই করা হয়েছে লাল রঙ। কলেজের নিজস্ব অর্থায়নে সাশ্রয়ীভাবে একাজে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৩২ লাখ টাকা। সরকারীভাবে এই প্রকল্প ব্যয় এক কোটি টাকা ছাড়িয়ে যেত বলে জানিয়েছেন কলেজ প্রশাসন।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান বলেন, আমাদের প্রশাসন ভবনের রঙ ঐতিহ্যের, গর্বের ও অহংকারের। স্বর্ণগর্ভা এই কলেজের ঐতিহ্যের বাহক এই গাড় লাল রঙ। তারই ধারাবাহিকতায় কলেজের প্রতিটি ভবনে লাল রঙ করা হয়েছে। সিল্ক যেমন রাজশাহী শহরের ব্রান্ডিং, তেমনি লাল রঙ রাজশাহী কলেজের ব্র্যান্ডিং হিসেবে পরিচিতি পায় সেই লক্ষ্যে এই উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকারের সাস্টেইন্যাবল ডেভেলপমেন্ট গোলে’র (এসডিজি) অন্যতম হলো সাসটেইন্যাবল ইনফ্রাস্ট্রাকচারাল ডেভেলপমেন্ট বা টেকসই ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন। সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে রাজশাহী কলেজের ভবনগুলো সংস্কার ও লাল রঙ করা হয়েছে বলে জানান তিনি। শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি চর্চার প্রাচীন ও বৃহৎ এই বিদ্যামন্দিরটি দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সর্বক্ষেত্রে অবদান রেখে চলেছে। আপন বৈশিষ্ট্যে উজ্জ্বল কলেজটির বর্তমানে আরও একটি বৈশিষ্ট্য হলো এর লাল রঙা ভবন।

প্রতিবেদক: আসাদুজ্জামান নূর, দপ্তর সম্পাদক, রাজশাহী কলেজ রিপোর্টার্স ইউনিটি

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of