“এসো মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি”

0
24

জাতি আজ স্বাধীনতার ৪৮তম বছরে পদার্পণ করছে, এ বড় আনন্দঘন অনুভূতি। তবে আমাদের স্বাধীনতার ইতিহাস যেমন গৌরবের, তেমনি বেদনারও। অনেক রক্ত ও আত্মত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে আমাদের স্বাধীনতা। যা নতুন প্রজন্মের কাছে অনেকটাই অজানাই রয়ে গেছে।

তাই এই প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে “এসো মুক্তিযুদ্ধের গল্প শুনি” শীর্ষক একটি আলোচনা সভার আয়োজন করে রাজশাহী কলেজের ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান এবং সমাজবিজ্ঞান বিভাগ।

গণহত্যা দিবসে সোমবার কলেজের কামারুজ্জামান ভবনের ১০১ নম্বর কক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষ্যে কলেজের বিভিন্ন বিভাগে স্মৃতিচারণ, আলোচনা সভা ও সন্ধ্যায় মোমবাতি প্রজ্বলন করা হয়।

মূলত নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় গড়ে তোলা এবং দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ করাই ছিল এই আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য।

আলোচনা সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. মোঃ মতিউর রহমান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা হাকিম আতাউর রহমান কলেজের শিক্ষার্থীদের সামনে মুক্তিযুদ্ধের অনেক জানা-অজানা সত্যি গল্প তথা ইতিহাসের মূল্যবান তথ্য তুলে ধরেন। এসময় দুই মুক্তিযোদ্ধার হাতে সন্মাননা স্মারক তুলে দেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান।

আপরদিকে কলেজের নারী অধিকার বিষয়ক সংগঠন “অনিন্দিতা” মহান স্বাধীনতা দিবস ২০১৯ উপলক্ষে ” বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে নারীদের ভূমিকা” বিষয়ক একটি রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। এতে কলেজের বিভিন্ন বিভাগের ৬৩ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

প্রতিযোগিতায় ১ম স্থান লাভ করেন কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থী জ্যোতি সাহা,২য় স্থানে ছিলেন তিনজন শিক্ষার্থী প্রানিবিদ্যা বিভাগ অনার্স ৩য় বর্ষের ছাত্রী মাহমুদা আকতার, ২য় বর্ষের ছাত্র জাহিদ হাসান ও সমাজকর্ম বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আবিদা সুলতানা সুমী এবং যৌথভাবে ৩য় স্থান লাভ করেন উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস (স্বর্ণা) ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মাকসুরা ইয়াসমিন মৌ।

রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেনবীর মুক্তিযোদ্ধা এড. মোঃ মতিউর রহমান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা হাকিম আতাউর রহমান।

এদিকে, সন্ধ্যায় কলেজের প্রশাসন ভবনের সামনে বাংলাদেশের মানচিত্রের আদলে মোমবাতি প্রজ্বলন করা হয়। এসময় কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আল-ফারুক চৌধুরীসহ, বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of