রাজশাহী কলেজে বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস পালিত

0
203

প্রতিবছর ১০ অক্টোবর বিশ্বব্যাপী মানসিক স্বাস্থ্য দিবস পালন করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় রাজশাহী কলেজে বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বুধবার কলেজ মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

‘আত্মহত্যা প্রতিরোধ ও মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন’ প্রতিপাদ্যকে ঘিরে কলেজের মনোবিজ্ঞান বিভাগ দিবসটি উদ্যাপনের আয়োজন করে। এতে সহায়তা করেছে মনোবিজ্ঞান ক্লাব। অনুষ্ঠান শুরুর পূর্বে মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতায় কলেজ ক্যাম্পাসে একটি র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

র‌্যালিটি কলেজ মিলনায়তনে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও সেমিনার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান। সরকারী সফরে দেশের বাইরে থাকায় তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন না।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কলেজ উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল খালেক বলেন, বিশেষজ্ঞরা অনেকেই তাদের বক্তব্যে আত্মহত্যা করার পূর্বে কাছের মানুষ ও বিশেষজ্ঞদেরকে জানানোর কথা বলেছেন, কিন্তু আমার মনে হয়, আত্মহত্যা করবার ইচ্ছা যারা পোষণ করে তারা কখনোই এ কথাটি শেয়ার করতে চায়বে না।

সুতরাং এ বিষয়ে আমাদের চারপাশের ব্যক্তিবর্গ যে পর্যায়ের হোক না কেন, আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মী তাদেরকে সচেতন হতে হবে। পারিপাশ্বিক বিভিন্ন কারনে সৃষ্ট বিচ্যুতির কারনেই মানুষ আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। সেকারনে আত্মহত্যার পথ যেন কেউ বেছে না নেয় সেই পরিবেশ তৈরীতে বা আত্মহত্যা প্রতিরোধে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত গ্রহণকারীর চেয়ে আশেপাশের মানুষদেরকে বেশি সচেতন হওয়া ও কাউন্সেলিং করা দরকার বলে মন্তব্য করেন তিনি। এছাড়াও তিনি মানসিক স্বাস্থ্যের উপর গুরুত্বারোপ করতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

মনোবিজ্ঞান বিভাগের প্রধান প্রফেসর পার্থ সারথি বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর পিযুষ কান্তি ফৌজদার। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাসুদুল হক সিদ্দিকী।

‘আত্মহত্যা প্রতিরোধ ও মানসিক স্বাস্থ্যের উন্নয়ন’ বিষয়ের উপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিভাগের প্রভাষক আজমত আলী রকি। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের মধ্যে দুইজন এই বিষয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

অনুষ্ঠানে বিভাগের শিক্ষার্থীদের নির্মিত আত্মহত্যা ও মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য সম্বলিত প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of