বিভাগ ওয়ারী বার্তা

২০২১ সালের পর এদেশের কোন মানুষ বস্তি ও ছাপড়া ঘরে থাকবে না: লিটন

রাজশাহী কলেজ বার্তা | | January 20, 2018 at 8:03 pm

আমাদের প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা অনুযায়ী ২০২১ সালের পর এদেশের কোন মানুষ বস্তি ও ছাপড়া ঘরে থাকবে না বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও নগর সভাপতি এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।
শনিবার রাজশাহী কলেজের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের হীরক জয়ন্তী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এই মন্তব্য করেন।প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহীকে স্বপ্নের নগরী করে গড়ে তোলার জন্য যা করার প্রয়োজন তিনি করবেন আর এই ক্ষেত্রে সকলের সাহায্য কামনা করে তিনি।তিনি বলেন আমাদের স্ব স্ব অবস্থান থেকে সবাইকে কাজ করতে হবে। সেই সাথে এই নগরীকে স্বপ্নের নগরী হিসেবে গড়ে তলার পুনরায় সুযোগ চান তিনি।

তিনি লিটন বলেন বলেন, আমাদের দেশের সমউন্নায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে কাজটি করছেন সেটি হচ্ছে নারী ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই সাড়া বিশ্বের নজর কেড়েছে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষনা করেছেন ২০২১ সালের পর এই দেশে যাদের বাড়িঘর নেই,জমিজমা নেই তাদের প্রত্যেকের জন্য সরকারি খরচে এ্যাপাটমেন্ট বিল্ডিং করে দেওয়া হবে।

তবে তাদের দীর্ঘ মেয়াদী কিস্তিতে সে টাকা পরিষদ করার সুযোগ করে দিবেন। থাইল্যান্ড , মালেশিয়ার পাশাপাশি বাংলাদেশেও প্রধানমন্ত্রী এই কাজটি করতে যাচ্ছেন। যাতে মানুষ মাথা গোজার ঠাঁই পাবে। কাউকে বস্তি ও ছাপড়া ঘরে থাকতে হবে না। এই হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা, যেটি শেখ হাসিনা করতে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, প্রায় দেড়’শত বছরে ধরে এই কলেজটি লক্ষ লক্ষ শিক্ষার্থী বের হয়েছে গেছে তাঁরা কর্মক্ষেত্রে মাধ্যমে দেশকে সেবা করেছে, জাতিকে সেবা করেছে। নিজ নিজ ক্ষেত্রে অবদার রেখেছে এবং অনেকে চলেও গেছে কিন্তু এই কলেজ তাঁর মান ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। মানুষসৃষ্টির সেরা জীব। আমাদের নিজেদের স্বার্থেই পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখতে প্রতিটি জীবের অস্তিত্ব নিশ্চিত করতে হবে। বিভিন্ন বিপন্ন প্রাণী , গাছ সব কিছু রক্ষা করতে হবে। তা না হলে মানুষই বিপন্ন হয়ে যাবে, মানুষের অস্তিত্ব সংকটের মুখে পড়বে।

রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসের মহা. হবিবুর রহমান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তথা কথিত দূর্নীতির কথা বলে যখন বিশ্ব ব্যাংক পদ্মা সেতুর টাকা ফিরিয়ে নিলো তখন প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন নিজ অর্থায়নে আমরা এটি করবো। একমাত্র বঙ্গবন্ধু কণ্যা বলেই এটি সম্ভব হয়েছে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি আরো বলেন, আগামী ৪ ফেবরুয়ারি রাজশাহী কলেজকে শ্রেষ্ঠ  প্রতিষ্ঠান হিসেবে মাননীয় প্রধনমন্ত্রী শেখ হসিনা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পুরস্কৃত করবেন। বাংলাদেশ যেমন এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তেমনি নানা সীমবদ্ধতা থাকা সত্বেও রাজশাহী কলেজও এগিয়ে যাচ্ছে। এতো বড় একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি কৃজ্ঞাতা জ্ঞাপন করেন তিনি।

এর আগে কলেজ থেকে একটি শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি নগরীর সোনদিঘী, সাহেব বাজার, জিরো পয়েন্ট, মনিচত্বর হয়ে পুনরায় কলেজে এসে শেষ হয়। পরে কলেজ চত্বরে কেক কেটে বেলুন উড়িয়ে দিবসটির উদ্বোধন করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান । এছাড়াও আলোচনা সভা ও কলেজ মিলনায়তনে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রাণিবিদ্যা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. নাসিমা ইয়াসমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আল-ফারুক চৌধুরী। এছাড়াও এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর শামিম আরা বেগম।

অনুষ্ঠানের আহবায়ক ছিলেন প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক ড. মো. রবিউল আলম।

read more

More from বিভাগ ওয়ারী বার্তা

রাজশাহী কলেজে নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ

রাজশাহী কলেজে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের (২০১৭-২০১৮শিক্ষাবর্ষ) শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কলেজের সমাজবিজ্ঞন বিভাগের ৪০১ নং কক্ষে এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ২৩৭ জন নবাগত শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়া হয়। বিস্তারিত

নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিলো রাজশাহী কলেজ

রাজশাহী কলেজে অনার্স প্রথম বর্ষের (২০১৭-২০১৮শিক্ষাবর্ষ) ছাত্র-ছাত্রীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১০ টায় কলা অনুষদের বাংলা, ইংরেজি, ইতিহাস, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, দর্শন, আরবি ও ইসলামিক স্টাডিজ এবং সংস্কৃতি বিভাগে পৃথক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নবাগত শিক্ষার্থীদের বরণ করে … বিস্তারিত

রাজশাহী কলেজের উদ্ভিদবিজ্ঞানের বিভাগীয় প্রধানের বিদায় সংবর্ধণা

রাজশাহী কলেজে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক হালিমা খাতুনের বিদায় সংবর্ধণা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বিভাগের ১০২ নং কক্ষে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। read more

রাজশাহী কলেজে বিভাগভিত্তিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা

রাজশাহী কলেজে বিভাগী ভিত্তিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পরিসংখ্যান বিভাগে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয় । বিস্তারিত

সুবিধ বঞ্চিত শিশুদের মাঝে সামাজিক স্কুলের শীতবস্ত্র বিতরণ

সুবিধ বঞ্চিত শিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে রাজশাহী কলেজ সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত সামাজিক স্কুল। সোমবার বিকালে রাজশাহী মহানগরীর ভদ্রা এলাকার রেলওয়ে মাঠে এ শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। বিস্তারিত

রাজশাহী কলেজে সম্মান পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা

রাজশাহী কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের উদ্যোগে অনার্স ৪র্থ বর্ষের (২০১২-২০১৩) পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিস্তারিত

রাজশাহী কলেজে পালিত হলো বিশ্ব পরিসংখ্যান দিবস

প্রথম বারের মত রাজশাহী কলেজে জাতীয় ভাবে পালিত হয়েছে বিশ্বপরিসংখ্যান দিবস। কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের আয়োজনে দিবসটি পালিত হয়। পরিসংখ্যান বিভাগ দিবসটি উদযাপনে সারাদিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে। এ ব্যাপারে পরিসংখ্যান বিভাগের প্রধান অধ্যাপক দেওয়ান আব্দুর রাজ্জাক জানান, আন্তর্জাতিক ভাবে পাঁচ … read more

প্রথম বারের মত পালিত হতে যাচ্ছে বিশ্ব পরিসংখ্যান দিবস!

প্রথম বারের মত রাজশাহী কলেজে জাতীয় ভাবে পালিত হতে যাচ্ছে বিশ্ব পরিসংখ্যান দিবস। কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের আয়োজনে আগামী ২১ অক্টোবর দিবসটি পালিত হবে। দিবসটি উদযাপনে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগ। বিস্তারিত

রাজশাহী কলেজে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠান

রাজশাহী কলেজে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিস্তারিত