রাজশাহী কলেজে প্রথম মানব শহীদ মিনার

রাজশাহী কলেজ বার্তা | | February 21, 2017 at 5:26 pm

ভাষা আন্দোলনের প্রথম শহীদ মিনার রাজশাহী কলেজে। এবার তৈরী হলো মানব শহীদ মিনার। এ দুই কীর্তিতে ইতিহাসের অংশ হয়ে রইলো বৃহৎবঙ্গের ঐতিহাসিক এ কলেজ।

মহান একুশে ফেব্রুয়ারী ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে সকাল ১০টায় রাজশাহী কলেজ মাঠে শিক্ষার্থীরা শহীদ মিনারের আদালতে তৈরী করেন স্মৃতির এ মিনার।
এতে অংশ নেন কলেজের উচ্চমাধ্যমিকের ২০১৮ ব্যাচের ছয়শ জন শিক্ষার্থী। হাতে সাদা প্ল্যাকাড নিয়ে অংশ নেন সবাই। সামনের মাঝ বরাবর সাজানো ছিলো বর্ণমালা। এর একপাশে রাজশাহী কলেজ এবং অন্যপাশে এইচএসসি-১৮ লেখা।
এসময় উস্থিত ছিলেন, কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আল ফারুক চৌধুরী, শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. জুবাইদা আয়েশা সিদ্দিকা প্রমুখ। উপস্থিত সবাই শ্রদ্ধা জানান মানব এ শহীদ মিনারে। রাজশাহীর ভাষা সৈনিকদের বিভিন্ন সময়ের বর্ণনা ও বক্তৃতি থেকে জানা যায়, ভাষার দাবিতে প্রথম রক্ত ঝরেছিলো রাজশাহী কলেজেই। রাজশাহী কলেজেই নির্মাণ করা হয় প্রথম শহীদ মিনার।

কিন্তু আজো রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পায়নি এ শহীদ মিনার।রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ মুহা. হবিবর রহমান বলেন, রাজশাহী কলেজে দেশের প্রথম শহীদ মিনার নির্মিত হয়েছিল। ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারি রাতে মুসলিম হোস্টেলের গেটের পাশে ওই শহীদ মিনার নির্মাণ করেন তৎকালিন কলেজের শিক্ষার্থীরা। তবে পরে সেটি ভেঙ্গে ফেলা হয়। রাজশাহী কলেজের দেশের প্রথম শহীদ মিনার নির্মাতা ও ভাষা শহীদদের স্মরণ করতে শিক্ষার্থীরা মানব শহীদ মিনার ডিসপ্লে করে।

অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান আরও বলেন, রাজশাহী কলেজের যে স্থানটিতে দেশের প্রথম শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়েছিল সেখানে ৫২ ফিট উচ্চতার একটি শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। শিক্ষার্থীরা ডিসপ্লেতে সেই শহীদ মিনার তৈরী করে দেখিয়েছে বলেন তিনি। অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান বলেন, নতুন শহীদ মিনার নির্মাণের প্রক্রিয়া চলছে। এ জন্য ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দা হয়েছে। শহীদ মিনারের নকশাও তৈরী হয়েছে। রাজশাহী সিটি করপোরেশন এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বলেন অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান।
এদিকে, একুশের প্রথম প্রহর থেকেই রাজশাহীর শহীদ মিনারগুলোয় জনতার ঢল। ফুলে ফুলে ভরে গেছে রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনার, কোর্ট শহীদ মিনার, ভুবনমোহন পার্ক শহীদ মিনার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনার, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শহীদ মিনারসক সকল শহীদ মিনারের বেদি। রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এনিয়ে আলাদা কর্মসূচি পালন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.