রাজশাহী কলেজে জাতীয় শোক দিবস পালিত

রাজশাহী কলেজ বার্তা | | August 15, 2017 at 7:27 pm

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিচারণ, শোক র‌্যালী সহ নানা কর্মসূচীর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে রাজশাহী কলেজ।

দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় রাজশাহী কলেজ রবীন্দ্র-নজরুল চত্বর থেকে একটি শোক র‌্যালি বের হয়। র‌্যালীটি নগরীর সোনাদিঘী মোড়, জিরো পয়েন্ট, আলুপট্টি মোড় হয়ে রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে এসে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আল-ফারুক চৌধুরী সহ কলেজে শিক্ষকবৃন্দ।

পরে কলেজ মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সবার শুরুতে বঙ্গবন্ধুর স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানে আলোচ্য বিষয় ছিল “বঙ্গবন্ধুর জীবন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা”। এসময় সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান।

সভাপতির বক্তব্যে তিনি বলেন, এইদিনে নৃশংসভাবে যাদের কে হত্যা করা হয়েছে, তাদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা নিবেদন করছি এবং তাদের আত্মার মাগফিতার কামনা করছি। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীনতা এই তিনটি কথা যে সংপৃক্ততা একটি সাথে আরেকটির যে গভির মিল বন্ধন এক বঙ্গবন্ধু তা উপলব্ধি করতে পেরেছিল।

তিনি আরো বলেন, এখানে যারা আছেন কেউ কেউ দেখেছেন বঙ্গবন্ধু সেই সময় সত্তরের নিবার্চনের পর বঙ্গবন্ধু যদি বলতো বাঙ্গালীকে আমি চাঁদ চাই তবে সেই সময় বাঙ্গালীরা বলতো আমরা তোমাকে চাঁদিই দিবো। এই ভাবে একজনা জনপ্রিয় নেতা পৃথিবীতে বিরল। আমাদের আর্দশ প্রার্থক্য থাকতে পারে কিন্তু একটি জায়গায় আমাদের স্থির হতে হবে, ধ্রুবক হতে হবে।

বঙ্গবন্ধু আমাদের নেতা, বঙ্গবন্ধু আমাদের বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু আমাদের ভুখন্ড, বঙ্গবন্ধু আমাদের মানচিত্র। যদি না করি তবে অকৃতজ্ঞ জাতি হিসেবে আমরা বিবেচিত হব এখন সামনে, আরো সামনে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে।

বিতর্ক প্রতিযোগিতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যেমন দেশকে ভালোবেসে গেছেন, দেশের মানুষকে ভালোবেসে গেছেন, যে দেশকে বা দেশের মানুষকে ভালোবাসবে সে কখনো দূর্নিতীপরায়ণ হতে পারেনা , সে কখনো চোর হতে পারে না, সে কখনো ডাকাত হতে পারে না, সে কখনো নির্যাতনকারী হতে পারে না, সে কখনো অন্যায়কারী হতে পারে না, সে মানব দরদী হবে , সে বাংলাদেশ দরদী হবে। আমাদের বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্দেশ্য ছিলো তাই।

আলোচনা সভার মূল আলোচক ছিলেন প্রাণিবিদ্যা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর শামিম আরা বেগম। এবং এ অনুষ্ঠানের আহবায়ক ইংরেজী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান পিযুষ কান্তি ফৌজদার।

উল্লেখ্য, এর আগে ৫ আগস্ট থেকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৪২তম শাহাদত বার্ষিকী জাতীয় শোক দিবস ২০১৭ উপলক্ষে রাজশাহী কলেজ বিভিন্ন বিভাগে বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এরই ধারবাহিকতাই ১৫ আগস্ট পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.