শেষ হাসিটা কার?

রাজশাহী কলেজ বার্তা | | November 13, 2017 at 5:43 pm

শেষ হাসিটা কার ব্যবস্থাপনা বিভাগের না ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের। আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতার বিদায় দেয়ার শেষ প্রস্তুতি চলছে রাজশাহী কলেজ ক্রিড়া কমিটির। আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজশাহী কলেজ মাঠে পর্দা নামবে আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতার। দুই দলই ফাইনালের চ্যম্পিয়ন ট্রফি নিজেদের করে নিতে শেষ মরণ কামড় দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

ফাইনালের আগে ‘বিগম্যাচ’ জিতেছে ব্যবস্থাপনা বিভাগ। সেমিফাইনালে তারা হারিয়েছে সেরা দল সমজকর্ম বিভাগকে। ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অবশ্য তেমন বাধা ছিল না অর্থনীতি বিভাগ। প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠেই অনেক খুশি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ। এদিকে ২০০৬ সালে ব্যবস্থাপনা বিভাগ আন্তঃবিভাগ ফুটবল প্রতিযোগিতায় চ্যম্পিয়ন হয়েছিল।

ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোসলেম উদ্দীন মন্ডল বলেন, ’প্রথম বারেরমত ফাইনালে খেলতে পেরে আমরা অত্যন্ত খুশি । আমরা শেষটাও রাঙাতে চাই।’

অর্থনীতিকে হারিয়েছেন সেমিফাইনালে। ফাইনালে কী নিজেদের ফেবারিট ভাবছেন? ‘ ফাইনালে ওঠার পথে অর্থনীতিকে হারিয়েছি। তাই বলে নিজেদেরই ফেবারিট ভাবছি তা নয়। ব্যবস্থাপনাও অনেক ভালো ফুটবল খেলে ফাইনালে উঠেছে’-জবাব ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের কোচের। চ্যম্পিয়ন ট্রফিটা নিজেদের করে নিতে আশাবাদী ব্যবস্থাপনা বিভাগ। এদিকে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগও ট্রফিটা নিজেদের করে পেতে চায়।

তবে এ নিয়ে বেশি চিন্ত নেই ব্যবস্থাপনা বিভাগের। ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘সেমিফাইনালে সমাজকর্ম আর আমাদের বল পজেশন ছিল ফিফটি ফিফটি। ম্যাচটি কিন্তু আমরাই জিতেছি। আমরা নিজেদের খেলাটাই খেলতে চাই। আমাদের চেষ্টা থাকবে নিজেদের পায়ে বল বেশি রাখার। বল বেশি পায়ে রাখতে পারলে গোলের সুযোগও বেশি আসবে।’ দ্বিতীয়বারের মতো চ্যম্পিয়ন ট্রফি নিজেদের করে নিতে চান বলেও জানান তিনি।

ক্রিড়া কমিটির প্রধান ড. ইলয়াছ উদ্দিন জানান, ফাইনালের সকল প্রস্তিুতি সম্পূর্ণ করা হয়েছে। সুষ্ঠ ভাবে ফাইনাল খেলাটি শেষ হবে বলেও আশা প্রশাক করেন তিনি।

ফাইনাল খেলায় রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.